• শিরোনাম

    হাত বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেলো বাসর ঘর হতে নিখোঁজ আব্দুল কাদির কে!

    বিডি জনপ্রত্যাশাঃ | ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১০:০৮ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 756 বার

    হাত বাঁধা অবস্থায় পাওয়া গেলো বাসর ঘর হতে নিখোঁজ আব্দুল কাদির কে!

    বিডি জনপ্রত্যাশাঃ জুড়ী উপজেলায় বাসর রাতে নববধুকে রেখে বাথরুমে যাওয়ার কথা বলে বর আব্দুল কাদির ওরফে শুকুর (২৭) নিখোঁজ হয়েছিলেন। শুক্রবার (৩০ আগস্ট) রাতে উপজেলার পশ্চিম জুড়ী ইউনিয়নের পূর্ব বাছিরপুর চাক্কাটিলা গ্রাম থেকে তিনি নিখোঁজ হন। নিখোঁজ বর আব্দুল কাদের একই গ্রামের চরু মিয়ার ছেলে ও স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষক। এদিকে ওই বরকে ১৯ ঘন্টা পর শনিবার সন্ধ্যায় বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগ ইউনিয়নের কাইয়াছড়া এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় তার হাত বাধা অবস্থায় ছিলো বলে পরিবারের দাবি। বরের আপন ভাই নুর ইসলাম মুঠোফোনে বলেন- আমার ভাইকে একজন ইমাম পেয়ে আমাদের জানিয়েছেন। আমরা দেখেছি তার হাত বাধা ও শরীরের বিভিন্নস্থানে বাধার চিহ্ন রয়েছে। নুর ইসলাম আরও জানান- আমার ভাই (বর আব্দুল কাদির) বলেছে চারজন যুবক তাকে বাধার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে আমার ভাই ড্রেনে পড়ে যায়। এসময় চিৎকার শুনে একজন ইমাম এগিয় এসে আমার ভাইকে উদ্ধার করে আমাদের ফোনে জানান। তবে পুলিশ বলছে বর আব্দুল কাদিরের শারীরিক সমস্যা রয়েছে। সূত্র জানায়, প্রেমের সম্পর্কে ছয় মাস পূর্বে আঁখি নামে এক মেয়েকে গোপনে বিয়ে করেন আব্দুল কাদির। বিষয়টি জানতে পেরে আব্দুল কাদেরের পরিবার প্রথমে তাদের মেনে না নিলেও ছেলের জেদের কাছে হার মানেন তারা। পরে শুক্রবার রাতে ওই মেয়েকে আনুষ্ঠানিকভাবে বরের বাড়িতে আনা হয়। এক পর্যায়ে রাত ১২টার পর আঁখিকে রেখে বাথরুমে যাওয়ার কথা বলে আব্দুল কাদির ঘর থেকে বের হয়। দীর্ঘ সময় পরও আব্দুল কাদির ফিরে না আসলে কনের কাছ থেকে বিষয়টি জানতে পেরে পরিবারের লোকজন তাকে খুঁজতে বের হয়। এ সময় বাথরুমের কাছে আব্দুল কাদিরের গায়ের গেঞ্জি ও পায়ের জুতা পাওয়া গেলেও তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় আব্দুল কাদিরের বড় ভাই নুর ইসলাম শনিবার (৩১ আগস্ট) জুড়ী থানায় একটি জিডি করেন। জুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মো. জাহাঙ্গীর আলম সরদার জানান, বর আব্দুল কাদিরের শারীরিক সমস্য আছে। তাই নিজেই আত্মগোপনে চলে গিয়েছিলো।



    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০