• শিরোনাম

    ঝালকাঠির ভাসমান হাট পরিদর্শন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

    বিডি জনপ্রত্যাশাঃ | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৯:০৫ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 347 বার

    ঝালকাঠির ভাসমান হাট পরিদর্শন করলেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

    বিডি জনপ্রত্যাশাঃ ঝালকাঠিতে ঐতিহ্যবাহী পেয়ারা ও আমরার বৃহত্তর ভাসমানহাট পরিদর্শন করেছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টায় তিনি সদর উপজেলার ভীমরুলী গ্রামের খালে পেয়ারার ভাসমানহাটে এসে পৌঁছান। এ সময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান ঝালকাঠির জেলা প্রশাসক মো. জোহর আলী ও পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন।

    প্রতিমন্ত্রী গ্রামের খালের ভাসমান পেয়ারারহাটে নৌ-ভ্রমণ করেন। পরে তিনি নৌকায় চড়ে স্থানীয় পেয়ারা, আমরা ও সবজি চাষিদের সঙ্গে মিশে যান। তিনি চাষীদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন। খালের দুই তীরে শত শত মানুষ দাঁড়িতে থেকে তা উপভোগ করেন। ভাসমান হাট পরিদর্শন শেষে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় তিনি ভাসমানহাটের প্রশংসা করেন।



    পলক বলেন, বর্তমান সরকার কৃষি এবং কৃষক বান্ধব সরকার। ১০ বছরে প্রধানমন্ত্রী কৃষি উন্নয়নে অনেকগুলো উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। যার জন্য বাংলাদেশ এখন ফুলে, ফলে ও ফসলে সারা বিশ্বের কাছে সমৃদ্ধশালী শষ্য শ্যামল সুন্দর বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছি। পেয়ারা ও আমরার ভাসমান বাজার ঘুরে দেখে মনে হলো এখানকার যোগাযোগ ব্যবস্থার অনেক উন্নয়ন হয়েছে। এখানকার কৃষকরা ফসলের দামের ওপর নির্ভর করে চলে। তাই কৃষক যেন প্রকৃত দাম পায় সেজন্য আইসিটি মন্ত্রণালয় ই-কমার্স প্লাটফর্ম তৈরি করে দেবে।

    এ ছাড়াও এক শপ, এক সেবা প্রকল্পের মাধ্যমে এখানকার পণ্যগুলো বিদেশে অনলাইনে ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করার ব্যবস্থা করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি কীত্তিপাশা ইউনিয়নে হাইস্পিড অপটিক্যাল বেকল বর্তমান সরকার পৌঁছে দিয়েছে। এই ভাসমান বাজারে অল্প সময়ের মধ্যে একটি ফ্রি ওয়াইফাই হটস্পট করে দেবো। যাতে এখানকার কৃষক, ক্রেতা-বিক্রেতা, স্থানীয় শিক্ষক, ছাত্র ও জনপ্রতিনিধিরা ফ্রি ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারেন বলে জানান তিনি।

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০