• শিরোনাম

    ঘরে বসেই অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর পাওয়া যাবে

    | ০৮ মে ২০২০ | ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

    ঘরে বসেই অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর পাওয়া যাবে

    bangladeshjonoprottasha.com

    অনলাইনে জাতীয় পরিচয়পত্র সংক্রান্ত সেবা চালু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ সেবার মাধ্যমে ভোটার তালিকায় যুক্ত হওয়া ৬৭ লাখ ৫৭ হাজারের বেশি নতুন ভোটার ঘরে বসেই তাদের জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সংগ্রহ ও প্রিন্ট দিতে পারবেন।

    এছাড়া জাতীয় পরিচয়পত্র সংশোধন, হারানো কার্ড পুনরায় প্রিন্ট ও নতুন ভোটার হওয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন।



    সোমবার (২৭ এপ্রিল) এক ভিডিও কনফারেন্সে এ সেবা চালুর ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধণ অনুবিভাগ (এনআইডিডব্লিউ)।

    অনলাইন সেবা কার্যক্রমের উদ্বোধন করে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মদ সাইদুল ইসলাম বলেন, করোনা মহামারীতে আক্রান্ত সারা দেশ। এই সংকটময় অবস্থায় জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর না থাকা বা জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্যগত ভুলে কারণে কেউ যাতে সমস্যায় না পড়ে সেজন্য অনলাইনে সেবা চালু করা হলো।

    এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস সংকটের কারণে বন্ধের সময়ের মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের ডাটাবেজ সার্ভার আপডেট করা হয়েছে। সামনে থেকে সার্ভার সংক্রান্ত জটিলতা থাকবে না।

    ভিডিও কনফারেন্সে জানানো হয়. অনলাইনের এই সেবা পেতে ভোটারকে https://services.nidw.gov.bd সাইটে প্রবেশ করে সেবা পাওয়া যাবে। এছাড়া এসএমএস’র মাধ্যমেও সেবা পাওয়া যাবে। মোবাইলের এসএমএসের মাধ্যমে এনআইডি নম্বর পেতে হলে মোবাইলের ম্যাসেজ অপশনে গিয়ে ইংরেজিতে এনআইডি লিখে স্পেস দিয়ে ফরম নম্বর, স্পেস জন্ম তারিখ মাস বছর লিখে ১০৫ নম্বরে পাঠাতে হবে।

    ফিরতি ম্যাসেজের মাধ্যমে জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর পাওয়া যাবে। নির্বাচন কমিশন গত ২ মার্চ নতুন ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে। এতে যুক্ত হয় ৬৭ লাখ ৫৮ হাজার ৩৪১ জন। নতুন এসব ভোটাররা এখনও জাতীয় পরিচয়পত্র পাননি।

    এতে আরও জানানো হয়, ইতিমধ্যে অনলাইনে যারা রেজিস্ট্রেশন করেও জাতীয় পরিচয়পত্র পাননি তারা https://services.nidw.gov.bd ওয়েবসাইটে ‘অন্যান্য তথ্যের’ ট্যাবে গিয়ে ঘওউ নম্বর লিংকে ফরম নম্বর ও জন্মতারিখ দিলে তার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর চলে আসবে।

    আরও জানানো হয়, কোন ব্যক্তি যদি জাতীয় পরিচয়পত্র হারিয়ে ফেলেন অথবা জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্য সংশোধন করতে চান তাবে তিনি প্রয়োজনীয় দলিলাদি সংযুক্ত করে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। এতে আবেদনের বর্তমান অবস্থা ও অনুমোদনের কার্ড প্রিন্ট নিতে পারবেন। এছাড়া এখনও যারা ভোটার হননি তারা অনলাইনে ভোটার হওয়ার আবেদন করতে পারবেন।

    করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে সংশ্লিষ্ট থানা বা উপজেলা অফিসে গিয়ে চোখের আইরিশ ও আঙ্গুলের ছাপ দিয়ে রেজিষ্ট্রেশন সম্পূর্ণ করবেন। তার আবেদন যাচাই বাছাই করে তাকে ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা ও জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে।

    এছাড়া রমজান মাসে জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন অনুবিভাগের হেল্পলাইন কল সেন্টারে ১০৫ নম্বরে ফোন করে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত সেবা পাওয়া যাবে।

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    Archive Calendar

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১